আত্মসমর্পণ করছেন ৬১৪ চরমপন্থি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0

এনএনবি : পাবনা অঞ্চলের ৬১৪ জন চরমপন্থি সরকারের কাছে আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

রোববার ঢাকার মিরপুরের পুলিশ স্টাফ কলেজে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

আগামী মঙ্গলবার পাবনায় এই আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান হবে বলে জানান মন্ত্রী।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকাকালে কুষ্টিয়া অঞ্চলের চরমপন্থিদের এক দল আত্মসমর্পণ করেছিল।

কমিউনিস্ট আদর্শে বিশ্বাসী সশস্ত্র কয়েকটি দল পাবনা, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা অঞ্চলে এক সময় সক্রিয় থাকলেও এখন তাদের তৎপরতা আগের মতো নেই।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশে কোন এক সময়, প্রায় ৩০-৪০ বছর আগে চরমপন্থিরা নানাভাবে প্রভাব বিস্তার করতো। তারা একটা বলয় সৃষ্টি করে অরাজকতা সৃষ্টি করতো। এগুলো কিন্তু ক্রমশ্যই ছোট হয়ে গেছে, এরা দূর্বল হয়ে গেছে।

“যেই কয়জন অবশিষ্ট ছিলেন, তারা আমাদের কাছে স্বীকার করেছেন, আমাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে আত্মসমর্থন করবেন। তাদের কৃতকর্মের জন্য তারা লজ্জা বোধ করছেন, তারা সেই পথ থেকে সরে আসবেন। তাদেরকে সুযোগ দিয়েছি। মোট ৬১৪ জন আগামী নয় তারিখ পাবনতে স্যারেন্ডার করবে।”

কী নিশ্চয়তায় তারা আত্মসমর্পণ করছেন- জানতে চাইলে কামাল বলেন, “এর আগে জলদস্যু-বনদস্যুরা যেভাবে স্যারেন্ডার করেছে, সেভাবে। এই কর্ম আর কোনোদিন করবেন না- ওয়াদা করলে তাদের আইনি সহযোগিতাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা আমরা গ্রহণ করব।”

বাংলাদেশ ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা জারির বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, “আমারা দেখেছি এটা তাদের প্রাকটিস হয়ে গেছে। মাঝে মাঝেই তারা এলার্ট দিয়ে থাকেন। আমাদের জানা নেই, তারা কেন বাংলাদেশে এ ধরনের এলার্ট দেন। এমন কোনো সিচ্যুয়েশন ঘটেনি যে কোন দেশের নাগরিকরা মনে করবেন তারা এ দেশে নিরাপদ নয়। সারা বাংলাদেশের কোথাও কোনো ধরনের ঝুঁকি আছে বলে আমাদের কাছে কোনো ইনফরমেশন নেই। তাদের কাছে থাকলে তারা আমাদের শেয়ার করতে পারে।”

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্যারেলে মুক্তির জন্য কোনো আবেদন করেছেন কি না- জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “আমাদের কাছে এই ধরনের আবেদন আসেনি, কাজেই এটার স্যাংশন দেওয়ার প্রশ্ন আসে না। আমি বলেছিলাম যদি তিনি আবেদন করেন, আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করব, আমাদের আইনে কোনো ইয়ে (সুযোগ) থাকে, তাহলে পরীক্ষা করে জানাব।”

Share.

Leave A Reply