আপাতত এমন চিন্তা নেই সিমলার

0

এফএনএস
বিনোদন: কয়েকদিন আগেও তাকে নিয়ে
ছিল মুখরোচক নানা আলোচনা। বিশেষ
করে একটি প্রশ্ন ছিল
সবার মুখে। ‘সিমলা কোথায়’? তবে সব ধরনের
প্রশ্নের উত্তর ভারতের মুম্বই থেকে সরাসরি দিয়েছেন
ঢাকাই ছবির এক সময়ের
আলোচিত নায়িকা ‘ম্যাডাম ফুলি’ খ্যাত সিমলা। ১৯৯৯ সালে মুক্তি
পাওয়া প্রথম ছবিতেই শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর ক্যাটাগরিতে যিনি পেয়েছিলেন জাতীয়
চলচ্চিত্র পুরস্কার। মাস পাঁচেক ধরে
ভারতের মুম্বইয়ে মীরা রোডের একটি
বাড়িতে থাকছেন সিমলা। কয়েকদিন আগে চট্টগ্রামে ঘটে
যাওয়া বিমান ছিনতাই চেষ্টার ঘটনায় জড়িত পলাশের কারণে
আলোচনায় আসেন এ অভিনেত্রীও।
কারণ, সেই যুবকের সঙ্গে
বিয়ের খবরও প্রকাশ পায়
সিমলার। তবে সে সময়ে
তিনি জানান, সেই সংসার আর
নেই তাদের।

নানা
কারণে দাম্পত্য জীবনের সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে পারেননি তারা। সিমলার ভাষ্যমতে, গত বছর ১৫ই
নভেম্বর পলাশ ও তার
ডিভোর্স হয়েছে। এদিকে কবে দেশে ফিরবেন
এবং কাজ নিয়ে পরিকল্পনা
কি জানতে চাইলে মঙ্গলবার মুম্বই থেকে মুঠোফোনে সিমলা
মানবজমিনকে বলেন, আমি এপ্রিলে ঢাকায়
ফিরে কাজ শুরু করবো।
বর্তমানে মুম্বইয়ের মীরা রোডের একটি
বাসায় থাকি আমি। কিছুদিন
পর এখানে ‘সফর’ নামে আমার
অভিনীত প্রথম হিন্দি সিনেমা মুক্তি পাবে। এ ছবির ডাবিং
শেষ করেছি। অচিরেই পোস্টারের ফটোশুটে অংশ নেবো। আপাতত
এই ছবিটি নিয়েই ব্যস্ততা আমার। নতুন কাজের জন্য
কথা চলছে। তাই নিজেকে তৈরি
করছি। বাংলাদেশে সবশেষ ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ ছবিতে কাজ করেছেন সিমলা।
ছবিটি পরিচালনা করেছেন তরুণ নির্মাতা রুবেল
আনুশ। বাংলাদেশে নতুন কাজ নিয়ে
ঢাকায় ফিরতে চান সিমলা। সাবেক
স্বামীর ঘটনার তদন্তে তাকে ঢাকায় ডাকা
হয়েছিল কি-না জানতে
চাইলে তিনি বলেন, না।
আমি গণমাধ্যমের মাধ্যমে বিষয়টি পরিষ্কার করে দিয়েছি। আর
আমাকে প্রশাসন থেকে তদন্তের স্বার্থে
ডাকা হয়নি। ডাকলে যেতাম। আমি এবার এমনিতেই
ঢাকায় যাব। মুম্বইয়ে কাজগুলো
শেষ করেই ঢাকায় ফিরবো।
সিমলা মুম্বইয়ে অভিনয়ের ক্লাস করেন নিয়মিত। নতুন
করে নাচও শিখেছেন। সামনে
কি নতুন করে আবারো
বিয়ের কথা ভাবছেন জানতে
চাইলে হাসতে হাসতে বলেন, আমাকে এখন আর কে
বিয়ে করবে। একবার তো ভুল করেছি।
আপাতত এমন চিন্তা নেই।
কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে
চাই। পলাশকে বিয়ের আগে কি আপনি
আরেকটি বিয়ে করেছিলেন? জবাবে
সিমলা বলেন, না। আমার যদি
আগে বিয়ে হতো তাহলে
এত বছরের ক্যারিয়ারে আপনারা তো কিছুটা হলেও
জানতেন। এটাই ছিল প্রথম
বিয়ে। আর এটাও তো
টিকলো না। যাই হোক
যা হয়েছে তা নিয়ে আফসোস
নেই আমার। মুম্বইয়ে একাই থাকেন সিমলা।
তবে একা থাকতে গিয়ে
কোনো ঝামেলাও হচ্ছে না বলে জানান
তিনি। সিমলা বলেন, আমি বেশ সাদামাটাভাবেই
মুম্বইয়ে চলাফেরা করি। সাধারণ মানুষের
মতো জীবন কাটাই। কারণ
আমি এখানে একটা স্বপ্ন নিয়ে
এসেছি। সেই স্বপ্নটা পূরণ
করতে চাই। আর বাংলাদেশেও
সাধারণ জীবনযাপন করতাম আমি। অভিনয় দিয়ে
মানুষের মনে জায়গা করতে
সক্ষম হয়েছিলাম। সিমলা আরো জানান, অভিনয়ই
তার বেঁচে থাকার শক্তি। তাই আবারো নতুন
কাজ দিয়ে ফিরতে চান
তিনি। বলিউডের পাশাপাশি ঢাকাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও নতুন কাজ করতে
চান সিমলা। নায়িকা হিসেবে শুধু নয়, একটি
ছবির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রেই তার কাজ করার
ইচ্ছে রয়েছে। একটা সময় ক্যামেরার
সামনের পাশাপাশি পেছনেও কাজ করার কথা
বলেছিলেন সিমলা। সেই সিদ্ধান্ত কি
এখন রয়েছে? এর উত্তরে তিনি
বলেন, হুম। ক্যামেরার পেছনে
কাজ করার একটা আগ্রহ
আমার আছে। তবে সেটা
এখনই না। আরো কিছু
সময় পর ক্যামেরার পেছনে
কাজ করতে চাই। তবে
আমি বর্তমানে অভিনয় ক্যারিয়ারটা নিয়েই থাকতে চাই।

Share.

Leave A Reply