কংগ্রেসের সাবেক ৮ মুখ্যমন্ত্রীর হার

0

এফএনএস আন্তর্জাতিক ডেস্ক : টানা দ্বিতীয়বারের মত লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে ভারতের শতাব্দী প্রাচীন দল কংগ্রেসের। এবার কংগ্রেসের অনেক জ্যেষ্ঠ নেতাই নির্বাচনী বৈতরণি পেরতে ব্যর্থ হয়েছেন। যাদের মধ্যে আট জন সাবেক মুখ্যমন্ত্রীও রয়েছেন।

শিলা দিক্ষিত:

হেরে যাওয়া নেতাদের মধ্যে সবার আগে আসে শিলা দিক্ষিতের নাম। দিল্লির তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেসের এই নেতা এবার দিল্লি নর্থ আসনে বিজেপি নেতা মনোজ তিওয়ারির কাছে হেরে গেছেন। দিল্লি বিজেপির সভাপতি মনোজ সাত লাখ ৮৭ হাজার ৭৯৯ (প্রায় ৫৪ শতাংশ) ভোট পেয়েছেন। শিলা পেয়েছেন চার লাখ ২১ হাজার ৬৯৭ (প্রায় ২৯ শতাংশ) ভোট। আম আদমি পার্টির দিলিপ পান্ডে এক লাখ ৯০ হাজার ৮৬৫ ভোট নিয়ে তিন নম্বরে আছেন।

হরিশ রাওয়াত:

উত্তরাখ-ের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী হরিশ রাওয়াত নৈনিতাল-উধামসিং নগর আসনে রাজ্য বিজেপির সভাপতি অজয় ভাটের কাছে তিন লাখের বেশি ভোটে হেরে গেছেন। এই আসনে অজয়ের জয় খানিকটা অপ্রত্যাশিতই ছিল। কারণ প্রথমবারের মত ভোটের লড়াইয়ে নেমেই অজয়কে রাজনীতিতে অভিজ্ঞ নেতা হরিশের মত শক্তিশালী প্রতিপক্ষের মোকাবেলা করতে হয়েছে।

ভূপিন্দর সিং হোড়া:

হরিয়ানার দুইবারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ভূপিন্দর সিং হোড়া শনিপাত আসনে বিজেপির রমেশ চন্দর কৌশিকের কাছে এক লাখ ৬৪ হাজার ৮৬৪ ভোটে হেরে গেছেন। হরিয়ানার অভিজ্ঞ এ নেতার হারই রাজ্যে কংগ্রেসের ভরাডুবির কথা বলে দিচ্ছে। এখানে লোকসভার ১০টি আসনের সবকটিতেই জিতেছে বিজেপি।

দিগবিজয় সিং:

মালাগাঁও বোমা হামলার অভিযুক্ত প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের কাছে বড় ব্যবধানে হেরেছেন মধ্যপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস নেতা দিগবিজয় সিং।

ভোপাল আসনে প্রজ্ঞা সাড়ে আট লাখের বেশি ভোট পেয়েছেন, দিগবিজয় পেয়েছেন পাঁচ লাখ ভোট। নয় বছর কারাভোগ করা প্রজ্ঞা মুক্তি পাওয়ার প্রায় তিন বছর পর বিজেপিতে যোগ দেন। গেরুয়া বস্ত্রধারী এই নারী সাম্প্রদায়িক বক্তব্যের জন্য খুবই বিতর্কিত।

সুশিল কুমার সিন্দে:

সোলাপুর আসনে বিজেপি প্রার্থী জয় সিদ্ধেশ্বর শিভাচার্যের কাছে দেড় লাখের বেশি ভোটের ব্যবধানে হেরে গেছেন মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস নেতা সুশিল কুমার সিন্দে।

মুকুল সাংমা:

মেঘালয়ের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মুকুল সাংমা তুরা আসনে ন্যাশনাল পিপুলস পার্টির আগাথা কে সাংমার কাছে হেরে গেছেন। আগাথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড কে সাংমার ছোট বোন।

ভীরাপ্পা মইলি:

কর্নাটকের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস নেতা ভীরাপ্পা মইলি চিকবল্লাপুর আসেন বিজেপির বি এ বাচে গৌড়ার কাছে এক লাখ ৮২ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে হেরে গেছেন।

মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী  অশোক চাভানও হেরে গেছেন।

Share.

Leave A Reply