চেতনায় চাটমোহরের মানবকল্যাণী উদ্যোগ শিশুর আমির হামজার অপারেশনের জন্য সংগৃহিত টাকা পরিবারের কাছে হস্তান্তর

0

স্টাফ রিপোর্টার : হার্টের ছিদ্র নিয়ে বেড়ে ওঠা আড়াই বছরের শিশু আমির হামজার অপারেশনের জন্য ফেসবুক গ্রুপ ‘চেতনায় চাটমোহর’র উদ্যোগে সংগৃহিত অর্থ সহায়তা তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

গতকাল রোববার দুপুরে চাটমোহর উপজেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তার কক্ষে শিশু আমির হামজার বাবা রফিকুল ইসলাম ও মা সমেলা খাতুনের হাতে এ অর্থ তুলে দেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হামিদ মাস্টার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার।

এ সময় চাটমোহর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক চলনবিল সম্পাদক রকিবুর রহমান টুকুন, নিমাইচড়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান খোকন, চেতনায় চাটমোহরের মানবিক উদ্যোগের সমন্বয়ক সাংবাদিক শাহীন রহমান, সহ-সমন্বয়ক সাংবাদিক পবিত্র তালুকদার, চেতনায় চাটমোহরের অ্যাডমিন জেমান আসাদ, খোঁজখবর ডটনেটের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক রনি রায়, আদর খান সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের পাঠানো আর্থিক সহায়তা বাবদ মোট ৭৬ হাজার টাকা আমির হামজার বাবা-মায়ের হাতে তুলে দেয়া হয়। সেইসাথে শিশুটির সুচিকিৎসা ও সুস্থ্যতা কামনা করা হয়।

শিশু আমির হামজা পাবনার চাটমোহর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামের দিনমজুর রফিকুল ইসলাম ও সমেলা খাতুন দম্পতির ছেলে। হার্টের ছিদ্র নিয়ে জন্ম নেয়া শিশু আমির হামজা বড় হওয়ার সাথে সাথে তার হার্টের ছিদ্র বড় হতে থাকে। অপারেশনের জন্য প্রয়োজন হয় দেড় লাখ টাকা। এমন অবস্থায় তার চিকিৎসার অর্থ যোগাড় করতে গিয়ে বাবা আশা ছাড়লেও, হাল ছাড়েননি মা। এক পর্যায়ে শরনাপন্ন হন গণমাধ্যমকর্মীদের। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন অনেকে। যোগাড় হয় প্রায় ৯০ হাজার টাকা। কিন্তু আরো বাকী থাকে ৬০ হাজার টাকা। এক্ষেত্রে এগিয়ে আসে চাটমোহরে নাগরিক সাংবাদিকতার প্রথম ধারণা জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ ‘চেতনায় চাটমোহর’।

সংগঠনটি তাদের মানবিক উদ্যোগ হিসেবে শিশু আমির হামজার অপারেশনের বাকি ৬০ হাজার টাকা সহযোগিতা চেয়ে সমাজের মানুষের প্রতি আহবান জানিয়ে গত রোববার (১৬ জুন) তাদের গ্রুপে একটি পোস্ট দেয়। দেশের বিভিন্ন স্থানের সাধারণ মানুষের অভিভূতকর সাড়ায় মাত্র চারদিনেই যোগাড় হয়ে যায় ৭৬ হাজার ৪০০ টাকা। চেতনায় চাটমোহর স্বচ্ছতার সাথে এই টাকা প্রাপ্তির হিসেব প্রতিদিন তাদের গ্রুপে আপডেট দিয়ে সবাইকে জানিয়েছে।

সর্বশেষ পূর্বঘোষিত নির্ধারিত দিন গতকাল রোববার শিশু আমির হামজার পরিবারের হাতে সাধারণ মানুষের সহায়তার সেই অর্থ তুলে দিয়ে তাদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করলো। সেইসাথে আমির হামজার মা সমেলা খাতুন উল্লেখিত টাকা বুঝে পেয়ে প্রাপ্তি স্বীকার দিয়েছেন এবং চেতনায় চাটমোহরের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। আগামীতে শিশু আমির হামজার অপারেশন ও চিকিৎসার খোঁজখবর রাখবে চেতনায় চাটমোহর। জানাবে আপনাদেরও।

Share.

Leave A Reply