ঠাকুর অনুকুলচন্দ্রের আবির্ভাব মহোৎসব আজ থেকে

0

স্টাফ রিপোর্টার : হেমায়েতপুরের সৎসঙ্গে আজ থেকে শুরু হবে তিনদিনের ঠাকুর অনুকুলচন্দ্রের ১৩১ তম শুভ আবির্ভাব বর্ষ স্মরণ মহোৎসব। এতে অংশ নেবে দেশ বিদেশের অসংখ্য ভক্ত। এনিয়ে সেখানে চলছে প্যান্ডেল নির্মাণসহ ব্যাপক প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই সম্পন্ন করেছেন আশ্রম কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই দুর দুরান্ত থেকে ভক্তেরা আনন্দ নিয়ে উৎসবে ছুটে এসেছেন ঠাকুরের কৃপা লাভের আশায়। উৎসব আনে জাতির জাগরন সৃষ্টি করে জীবনের স্পন্দন আর উৎসব মানে শ্রেয় সৃজনী সংহতি সমাবেশ ঠাকুরের এই বাণীকে ধারন করে সেজে উঠছে উৎসবস্থল। বিশাল এলাকাজুড়ে চলছে উৎসব ঘিরে আনুসঙ্গিক কাজ। আর উৎসব সফল করতে গতকাল দুুপুরে হেমায়েতপুর সৎসঙ্গে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন সৎসঙ্গ আশ্রম সংশ্লিষ্টরা। সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন হেমায়েতপুর সৎসঙ্গ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড.রবীন্দ্রনাথ সরকার,সহ সভাপতি অধ্যাপক যুগোল কিশোর ঘোষ, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক তাপস রায় প্রমূখ। এসময় হেমায়েতপুর সৎসঙ্গ আশ্রমের উপদেষ্টা অধ্যাপক গোপীনাথ কুন্ডু, ভারত থেকে আগত সহ প্রতি ঋতিক প্রবীর ঘোষ, সহ প্রতি ঋতিক রিতিশ বন্দোপাধ্যায়,সহকারী ঋতিক নগেন্দ্র প্রধান, সহকারী ঋতিক সাহাপদ সাহা, উৎসব কমিটির কর্মকর্তা ড. নরেশ মধু প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন ঠাকুর অনুকুল চন্দ্রের মানবতার যে বাণী তা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিয়ে হিংসা হানাহানিমুক্ত জীবন প্রবাহে সকলকে সম্মিলিতভাবে নিজ নিজ পরিসর থেকে কাজ করতে হবে। তিনদিনব্যাপী ঠাকুরের পুণ্য দোল তিথি মহোৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে উদ্বোধন করবেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স। আজ সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। তিনদিনের অনুষ্ঠানে পাবনা-৩ আসনের সাংসদ মকবুল হোসেন, পাবনা-৪ আসনের সাংসদ শামসুর রহমান শরীফ, জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএমসহ নানা গুণীজনেরা আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করবেন।

কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে, ঊষাকীর্তন ও মাঙ্গলিকী, ভোরের প্রার্থনা, সদগ্রন্থাদি পাঠ, শ্রী মন্দিরে ঠাকুরের জন্মলগ্ন ঘোষনা ও বিশেষ সমবেত প্রার্থনা, জাতীয় সংগীত ও মাতৃবন্দনা সহযোগে জাতীয় পতাকা ও সৎসঙ্গ পতাকা উত্তোলন, শোভাযাত্রা, কুইজ প্রতিযোগিতা, বিশেষ ধর্ম আলোচনা, বিশেষ সঙ্গীত আয়োজন, শ্রীমদ্ভাগবত পাঠের আসর, অনুকূল ভক্তগীতি, কিশোরমেলা, সান্ধ্য প্রার্থনা, লোকরঞ্জন কবিগান, রামায়ণগান, লোকরঞ্জনসহ নানা আয়োজন। সকলকে উৎসবে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে আশ্রমের পক্ষ থেকে।

Share.

Leave A Reply