নাসিরপুরে নিহতদের মধ্যে চার শিশু

0

এনএনবি : মৌলভীবাজারের নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানা থেকে ছিন্নভিন্ন অবস্থায় সাত থেকে আটজনের লাশের মধ্যে চারটি শিশুর লাশ রয়েছে। শিশুদের বয়স এক বছরের নিচ থেকে শুরু করে ১০ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সী শিশুটির বয়স কয়েক মাস। বিস্ফোরণে শিশুটির দেহ এতই ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে যে এটা ছেলে না মেয়ে বোঝার উপায় নেই।

গতকাল শুক্রবার বিকালে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট মৌলভীবাজার জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত করা হয়।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক পার্থ সারথী দত্ত বলেন, ছিন্নভিন্ন লাশের যেসব অংশ এসেছে তা ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। চারটি শিশুর মধ্যে একটি শিশুর বয়স কয়েক মাস; বাকি তিনটির বয়স ২ বছর, ৭ বছর ও ১০ বছর। আর নারী দুজনের একজনের বয়স ২৫ ও অপরজনের ৩৫ বছর। পুরুষটির বয়স ৩৫ বছর।

পার্থ সারথী আরও জানান, লাশগুলিতে মোটা তারের টুকরোর মতো ধাতব বস্তু পাওয়া গেছে। লাশগুলো এখানে আনার দুই একদিন আগেই তাদের মৃত্যু হয় বলে মনে হচ্ছে। পচনও ধরেছে, তবে তাদের চেহারা বোঝা যাচ্ছে। প্রাপ্ত বয়স্ক তিনজনের পেটের অংশের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। ডিএনএ পরীক্ষার জন্য প্রতিটি লাশ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এই ময়নাতদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছিল। তাঁরা হলেন: সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট সুব্রত কুমার রায়, জুনিয়র কনসালট্যান্ট আবু ইমরান ও আরএমও পলাশ রায়।

গত বুধবার ভোরে শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে নাসিরপুর গ্রামের জঙ্গি আস্তানাটি শনাক্ত করা হয়। প্রায় ৩৪ ঘণ্টা ঘিরে রাখার পর এই আস্তানা থেকে ‘ছিন্নভিন্ন সাত থেকে আটজনের লাশের অংশ’ পাওয়ার কথা জানায় পুলিশ। পুলিশের ধারণা, গত বুধবার বিকেলেই বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আত্মঘাতী হয় তারা।

Share.

Leave A Reply