পাঞ্জাবের রোমাঞ্চকর জয় হায়দরাবাদের বিপক্ষে

0

এফএনএস স্পোর্টস: শেষ ওভারে দরকার ছিল ১১ রান। একপ্রান্ত আগলে রাখা লোকেশ রাহুল সমীকরণটা মিলিয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে এনে দিয়েছেন রোমাঞ্চকর জয়। সোমবার আইপিএলের একমাত্র খেলায় সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে পাঞ্জাব।

আবারও উপেক্ষিত সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশি অলরাউন্ডারকে ছাড়া জিততেও পারেনি হায়দরাবাদ। ডেভিড ওয়ার্নারের অপরাজিত ফিফটিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে হায়দরাবাদ করে ১৫০ রান। জবাবে লোকেশ রাহুলের হার না মানা হাফসেঞ্চুরিতে ৪ উইকেট হারিয়ে ১ বল আগে জয় নিশ্চিত করে পাঞ্জাব।

চন্ডিগড়ে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট পড়লেও ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হয়েছে। যে কারণে হায়দরাবাদের ১৫০ রানের সংগ্রহটাও কঠিন হয়ে পড়েছিল পাঞ্জাবের। শেষ ওভারে জিততে তাদের দরকার পড়ে ১১ রান। মোহাম্মদ নবীর করা ওই ওভারে ১ বল আগে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব।

স্বাগতিকদের জয়ের নায়ক লোকেশ। এই ওপেনার ৫৩ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় হার না মানা ৭১ রানের ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন। গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন মায়ঙ্ক আগারওয়ালও, ৪৩ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় তিনি করে যান ৫৫ রান। লোকেশের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে গড়েন তিনি ১১৪ রানের জুটি। ক্রিস গেইল অবশ্য বেশিদূর যেতে পারেননি, ১৪ বলে করেছেন ১৬ রান।

হায়দরাবাদের সন্দীপ শর্মা বল হাতে ছিলেন দারুণ, ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে তার শিকার ২ উইকেট। একটি করে উইকেট পেয়েছেন রশিদ খান ও সিদ্ধার্থ কৌল।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা হায়দরাবাদকে দিতে হয় কঠিন পরীক্ষা। পাঞ্জাবের বোলারদের সামনের ধীরগতিতে ব্যাটিং করতে হয়েছে তাদের। তাই ডেভিড ওয়ার্নার তার অপরাজিত ৭০ রান করতে বল খেলেছেন ৬২টি, মেরেছেন ৬ বাউন্ডারির সঙ্গে এক ছাক্কা। অস্ট্রেলিয়ান এই ওপেনার ছাড়া আর কেউই তেমন কিছু করতে পারেননি। ২৭ বলে ২৬ রান করছেন বিজয় শঙ্কর।

দারুণ দিন পার করা পাঞ্জাবের তিন বোলার- মোহাম্মদ সামি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও মুজিব উর রহমান প্রত্যেকে পেয়েছেন একটি করে উইকেট। ক্রিকইনফো

 

Share.

Leave A Reply