ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ দাবির অভিযোগ ইউএনও’র কাছে ভাঙ্গুড়ায়

0

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি : ভাঙ্গুড়া উপজেলার পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়ন ভূমি উপসহকারি কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদের বিরুদ্ধে ঘুষ দাবি করার অভিযোগ করেছেন আব্দুস সাত্তার নামে এক ব্যক্তি। ভূমি নামজারি করতে ওই কর্মকর্তা ঘুষ দাবি করেন বলে তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে এই অভিযোগ করেন। আব্দুস সাত্তার উপজেলার পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের পাথরঘাটা গ্রামের মৃত নবীর উদ্দিনের পুত্র। অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই ব্যক্তির ভূমি নামজারির ব্যবস্থা করে দেন এবং ঘুষ দাবি করা কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেন। অভিযোগকারী ব্যক্তি জানায়, পৈতৃকসূত্রে পাওয়া ৭ শতক ভূমি নামজারি করতে তিনি গত সপ্তাহে পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যান। এসময় উপসহকারি কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ তার কাছে ৪হাজার টাকা দাবি করেন। টাকা দেওয়ার সময় আব্দুস সাত্তার মানি রিসিপ্ট চান। এতে ওই কর্মকর্তা ক্ষিপ্ত হয়ে নামজারির ফাইল জমা না নিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে জমা দিতে বলে। গত রবিবার আব্দুস সাত্তার ফাইল নিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মচারী নাসরিন আক্তারের কাছে ফাইল জমা দিতে যান। এসময় নাসরীন আক্তার ফাইল জমা না নিয়ে ইউনিয়ন ভূমি উপসহকারি কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদের সাথে যোগাযোগ করে আসতে বলেন। নিরুপায় হয়ে আব্দুস সাত্তার সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে এই অভিযোগ করেন। এদিকে ঘুষ চাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়ন ভূমি উপসহকারি কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ বলেন, আমি তাকে বুঝিয়ে বলে উপজেলা ভূমি অফিসে ফাইল জমা দিতে বলেছি। কিন্তু সেখানকার কর্মচারী ফাইল না নেয়ায় আব্দুস সাত্তার বিরক্ত হয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছেন। অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাছুদুর রহমান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। ঘুষ চাওয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হলে ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share.

Leave A Reply