কোহলিকে দেশের জন্য খেলতে ক্লার্কের পরামর্শ

0

এফএনএস স্পোর্টস: কোনো এক অজানা কারণে ইংল্যান্ডের মাটিতে বিরাট কোহলির রেকর্ড মোটেই ভালো নয়। আর তিনি কিনা বর্তমান ক্রিকেট দুনিয়ায় বলা যায় এক হাতেই শাসন করছেন। এ কারণেই জুলাইয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারত সিরিজের আগে ভারতীয় অধিনায়ক ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে থিতু হওয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কাউন্টি খেলার চুক্তি করেছেন।

তার এই সিদ্ধান্তের পর থেকে নানান দিক থেকে কথা শুনতে হচ্ছে কোহলিকে। কারণ কাউন্টি দল সারের সঙ্গে পুরো জুন মাসের চুক্তি করেছেন তিনি। আর জুনেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ খেলবে ভারত। সে টেস্টে খেলবেন না কোহলি।

কোহলির এমন সিদ্ধান্তে, ভারতীয় বোর্ডের (বিসিসিআই) পক্ষ থেকে আগেই অসম্মতি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। কোহলির এমন সিদ্ধান্তে বেশ অবাক হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ও অধিনায়ক মাইলেক ক্ল্যার্কও। তার মতে, কাউন্টি নয়, দেশের হয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটিই খেলা উচিত কোহলির।

বেঙ্গালুরুতে ১৪ থেকে ১৮ জুন ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসে প্রথম টেস্ট খেলবে আফগানিস্তান। বিসিসিআই ও ক্লার্ক উভয়ই মনে করেন, কোহলির এমন সিদ্ধান্ত দেশকে ছোট করছে। সাবেক এই অজি তারকা বর্তমানে আইপিএলে বিশেষজ্ঞ ও ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করতে ভারতেই অবস্থান করছেন।

ভারতের চেম্বার্স অব কমার্স আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক বলেন, আমি সত্যিই খুব অবাক হয়েছি। এটা তো বিরাটের সিদ্ধান্ত। আমার মতে টেস্ট ম্যাচ তো টেস্ট ম্যাচই। এখানে প্রতিপক্ষ কে, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, খেলাটা সর্বোচ্চ প্রাধান্য পাওয়া উচিত। দেশের প্রতিনিধিত্ব করার মতো দারুণ ব্যাপার আর হয় না। তাই আমি চাই দেশে ফিরে গিয়ে সে যেন টেস্ট ম্যাচটা খেলে।

২০১৪ সালে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ইংল্যান্ড সফরে মোটেও ভালো করতে পারেননি কোহলি। ৫ টেস্টে মাত্র ১৩৪ রান করেছিলেন। এবার ভালো করার লক্ষ্যেই মূলত কাউন্টিতে খেলার সিদ্ধান্ত। তবুও দেশকেই এগিয়ে রাখা উচিত উল্লেখ করে ক্লার্ক বলেন, নিজের ক্যারিয়ারে আমি সবসময় দেশকে প্রাধান্য দিয়েছি। এজন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি কিংবা অন্য কোনো দলের

হয়ে খেলার সুযোগ ছেড়েছি। দেশের হয়ে খেলা সত্যিই এক বিশেষ অনুভূতি।

 

Share.

Leave A Reply