গাজীপুরে ভোট চুরির ষড়যন্ত্র করছে সরকার: মোশাররফ

0

এনএনবি : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সরকার ‘ভোট চুরির ষড়যন্ত্র’ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) উদ্যোগে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি সংশোধন করে সরকারি দলের এমপিদের গাজীপুর নির্বাচনে প্রচারণার জন্য সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। তারা জানেন যে, জনগণের ভোটে তারা নির্বাচিত হতে পারবে না। সেজন্য সরকার গাজীপুরে অন্য একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভোটচুরি করার ষড়যন্ত্র করছে।

খুলনার অভিজ্ঞতা মূল্যায়ন করে গাজীপুরে সরকারের ‘ভোটের নীল-নকশা’ প্রতিরোধ করার জন্য বিএনপিও পরিবর্তিত কৌশল নিয়ে নির্বাচনে থাকবে বলে ঘোষণা দেন দলটির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

সরকারের উদ্দেশ্যে খন্দকার মোশাররফ বলেন, “আমরা বলতে চাই, আপনারা যত কূটকৌশল করুন না কেন, আমরা আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে থাকব। আমাদেরকে হটাতে পারবেন না, আমাদেরকে নির্বাচনের মাঠ থেকে সরাতে পারবে না।”

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, মানুষ জানে সরকার দলীয় এমপি বা তাদের বড় বড় নেতাদের ছত্রছায়া ছাড়া কোনো মাদক ব্যবসা চলতে পারে না; প্রশাসনের যোগসাজশ ছাড়া মাদক ব্যবসা চলতে পারে না। সাধারণ যারা মাদক ক্যারিয়ার তাদেরকে ঢালাওভাবে বিচারবর্হিভুত হত্যা করা হচ্ছে। যাতে করে তাদের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের গডফাদারদের, আওয়ামী লীগের নেতাদের নাম সবাই জেনে ফেলতে না পারে, মিডিয়া জেনে ফেলতে না পারে সেজন্য আজকে এই বিচারবর্হিভূত হত্যাকা- হচ্ছে। না হলে মাদক নির্মূলের জন্য হত্যাকা-ের প্রয়োজন হয় না।

ভারত সফররত প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে এই বিএনপি নেতা বলেন, “বাংলাদেশের মানুষের মরা-বাঁচার সমস্যা হচ্ছে পানি। আপনি ভারতে গিয়েছেন তিস্তার চুক্তির বিষয়ে আপনি পুরো বিষয়ে ইতিবাচক কিছু নিয়ে এসে জনগণকে বলেন। তাহলে জনগণ মনে করবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সফর যৌক্তিক।”

ড্যাবের অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে ও জ্যেষ্ঠ মহাসচিব রফিকুল ইসলাম বাচ্চুর পরিচালনায় সভায় কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, অধ্যাপক আবদুল মান্নান মিয়া ও শিক্ষক-কর্মচারি ঐক্যজোটের সভাপতি অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়া বক্তব্য দেন।

Share.

Leave A Reply