স্টেইন ৬ মাস পর দক্ষিণ আফ্রিকা দলে

0

এফএনএস স্পোর্টস: মর্নে মর্কেল অবসরে গেলেন। আচমকা বিদায় বলে দিলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। অভিজ্ঞ দুই সেনানীকে হারানো দক্ষিণ আফ্রিকার অপেক্ষায় নতুন চ্যালেঞ্জ। হাহাকারের মাঝেও তাদের জন্য একটি স্বস্তির খবর, দীর্ঘ চোট কাটিয়ে অবশেষে ফিরেছেন ডেল স্টেইন।

অভিজ্ঞ এই ফাস্ট বোলার জায়গা পেয়েছেন শ্রীলঙ্কা সফরের দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট দলে। কন্ডিশন বিবেচনায় নিয়ে প্রোটিয়ারা লঙ্কায় য্চ্ছো তিনজন স্পিনার নিয়ে।

স্টেইন সবশেষ খেলেছেন গত জানুয়ারিতে ভারতের বিপক্ষে কেপ টাউন টেস্টে। আরেকটি চোট কাটিয়ে সেই টেস্ট দিয়েই ফিরেছিলেন ১৪ মাস পর। প্রথম ইনিংসে দুটি উইকেটও নিয়েছিলেন। কিন্তু ওই টেস্টেই আবার বাধান চোট।

গোড়ালির গাঁটের সেই চোট এবার তাকে বাইরে রাখল ৬ মাস। কদিন আগে ক্রিকেটে ফিরেছেন হ্যাম্পশায়ারের হয়ে ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেট দিয়ে। শুরটায় যদিও ছন্দ পেতে লড়ছেন। তবে পারফরম্যান্সে তার প্রমাণ করার নেই কিছুই। দেখার ছিল ফিটনেস। সারের হয়ে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের চলতি ম্যাচটিতে এক ইনিংসে ২৬ ওভার বোলিং করে ফিটনেসের প্রমাণ রেখেছেন।

২০০৪ সালে ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে একই টেস্ট দিয়ে স্টেইন শুরু করেছিলেন ক্যারিয়ার। ডি ভিলিয়ার্স অবসরে গেলেও স্টেইন কদিন আগে বলেছেন, খেলে যেতে চান, যতদিন পারা যায়।

তবে তার সেই চাওয়ায় সবচেয়ে বড় বাধা নিজের শরীর। চোটের কারণে ২০১৫ সালের পর থেকে গত আড়াই বছরে খেলতে পেরেছেন কেবল চারটি টেস্টে। এবার শুরু করলেন আরও একটি অধ্যায়, যেখানে আর তিনটি উইকেট পেলেই শন পোলকের ৪২১ উইকেট ছাড়িয়ে হয়ে যাবেন দক্ষিণ আফ্রিকার সফলতম টেস্ট বোলার।

অবসরে যাওয়া মর্কেলের জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন লুঙ্গি এনগিডি। সীমিত সুযোগে এর মধ্যেই নিজের প্রতিশ্রুতির স্বাক্ষর রেখেছেন এই ফাস্ট বোলার। চোটের কারণে আইপিএলে খেলতে না পারা কাগিসো রাবাদাও ফিরেছেন ফিট হয়ে।

ডি ভিলিয়ার্সের জায়গায় আপাতত প্রোটিয়াদের বাজি হাইনরিখ ক্লাসেন। সীমিত ওভারে ক্যারিয়ারের শুরুটায় দারুণ পারফর্ম করে এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জায়গা করে নিলেন টেস্ট দলেও। মূল কিপার ব্যাটসম্যান যদিও কুইন্টন ডি কক। ব্যাটসম্যান হিসেবে একাদশে জায়গা পেতে ক্লাসেনকে লড়তে হবে টিউনিস ডি ব্রুইনের সঙ্গে।

শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনে তিন স্পিনার নেওয়াটাও ছিল অনুমিত। মূল স্পিনার বাঁহাতি কেশভ মহারাজের সঙ্গে আছেন দুই রিস্ট স্পিনার তাবরাইজ শামসি ও শন ভন বার্গ।

রঙিন পোশাকে টুকটাক সুযোগ পেলেও চায়নাম্যান বোলার শামসি একমাত্র টেস্টটি খেলেছেন ২০১৬ সালের নভেম্বরে। ৩১ বছল বয়সী লেগ স্পিনার ভন বার্গ ডাক পেলেন প্রথমবার। ঘরোয়া ক্রিকেটের পরীক্ষিত এই পারফর্মার ৯৬ টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৩৪৫ উইকেট।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি শুরু হবে আগামি ১২ জুলাই।

টেস্টের দক্ষিণ আফ্রিকা দল: ডিন এলগার, এইডেন মারক্রাম, হাশিম আমলা, ফাফ দু প্লেসি (অধিনায়ক), টেম্বা বাভুমা, টিউনিস ডি ব্রুইন, কুইন্টন ডি কক, হাইনরিখ ক্লাসেন, কাগিসো রাবাদা, ভার্নন ফিল্যান্ডার, ডেল স্টেইন, লুঙ্গি এনগিডি, কেশভ মহারাজ, তাবরাইজ শামসি, শন ভন বার্গ।

Share.

Leave A Reply