‘একটা ম্যাচই সবকিছু বদলে দিতে পারে’: মাশরাফি

0

এফএনএস স্পোর্টস: গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মুশফিকুর রহিমের ব্যাটিং বীরত্বে দারুণ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু এরপরই যেন খেই হারিয়ে ফেলার শুরু। প্রথমে আফগানিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বিশাল পরাজয়, এরপর সুপার ফোরে নিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষেও একই পরিণাম। সবমিলিয়ে নিজেদের হারিয়ে খুঁজছে বাংলাদেশ। তবে এখনই হতাশ হওয়ার কিছু দেখেছেন না টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা।

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে নিজেদের প্রথম ম্যাচ হেরে যাওয়ার পরও বাংলাদেশের সামনে সুযোগ রয়েছে ফাইনালে ওঠার। হাতে আছে আরও দুই ম্যাচ। আগামি রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) আফগানিস্তানের বিপক্ষে আর বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ফলে এখনই আশা হারাতে চাইছেন না মাশরাফি।

টাইগার দলপতি বলেন, ‘একটা ম্যাচই সবকিছু বদলে দিতে পারে। আমরা এখনও টুর্নামেন্টে আছি। পরের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে আমাদের ভালো করতে হবে।‘

আফগানদের বিপক্ষে আগের ম্যাচেই ১৩৬ রানের বিশাল পরাজয় বরণ করেছে টাইগাররা। ফলে সুপার ফোরের ম্যাচে যে তাদের বিপক্ষে ম্যাচটি জেতা কঠিন হবে তাও জানালেন মাশরাফি, ‘আফগানদের বোলিং অনেক শক্তিশালী। তাই তাদের হারানো কঠিন হবে। তবে আমরা যদি ২৬০-২৭০ রান সংগ্রহ করতে পারি তাহলে জেতা কঠিন হবে না।’

টানা দুই ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং ব্যর্থতা ডুবিয়েছে টাইগারদের। বিশেষ করে তামিমবিহীন টপ অর্ডার একবারেই অকার্যকর সাব্যস্ত হয়েছে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১১৯ রানে আর সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ১৭৩ রানে গুটিয়ে যাওয়া চিন্তায় ফেলে দিয়েছে মাশরাফিকেও। এজন্য দলের সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালের না থাকা, সাকিব-মুশফিকের আনফিট থাকাটাও একটা বড় কারণ। তবে ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে আরও ভালো কিছু আশা করছেন ম্যাশ।

‘ব্যাটসম্যানদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। উইকেট পরে গেলেও ম্যাচে টিকে থাকতে হবে। আগামি ম্যাচে আমাদের প্রতিপক্ষ (আফগানিস্তান) বোলিংয়ে শক্তিশালী, তাই আমাদের ভালো ব্যাট করতে হবে।‘

কাজটা সহজ নয়। তবে আশা হারালে সবই শেষ। তাই বাংলাদেশের অগণিত ক্রিকেটপাগল ভক্তদের জন্য আশার আলো দেখাচ্ছেন মাশরাফি। ‘আমার কাছে মনে হয় এখনও ফাইনাল খেলা সম্ভব। এত হতাশ হওয়ার কিছু নেই। যদিও দুটি ম্যাচ হারা হতাশার আর তা কেউ চায়নি। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিততে পারলে, পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে ৫০-৫০ সুযোগ থাকবে। আর যদি ওই ম্যাচ জিতে যাই তাহলেই ফাইনালের সুযোগ থাকবে আমাদের।‘

এদিকে টানা দুই ম্যাচ হারের ধাক্কা সামলে ওঠার জন্য হাতে একদিন সময় পাচ্ছে বাংলাদেশ। সুপার ফোরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হেরে গেছে বাংলাদেশ। একই রাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরেছে আফগানিস্তান। ফলে দুই দলের জন্যই আগামীকালের ম্যাচটি হতে যাচ্ছে টিকে থাকার লড়াই।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ হারলেও ব্যক্তিগত একটি অর্জন অবশ্য ঝুলিতে পুরেছেন মাশরাফি। ওয়ানডে ক্রিকেট উইকেট দখলের দিক থেকে পাকিস্তানের কিংবদন্তি ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারকে পেছনে দিয়েছেন বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি বোলার (ওয়ানডেতে)। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে শোয়েব মালিকের সমান ২৪৭ উইকেট ছিল মাশরাফির ঝুলিতে। আফগানদের বিপক্ষে উইকেট না পেলেও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে মাহেন্দ্র সিং ধোনির উইকেট তুলে নিয়ে শোয়েবকেও ছাড়িয়ে গেলেন ম্যাশ।

Share.

Leave A Reply