অস্ট্রেলিয়ার কোহলি স্টিভেন স্মিথ: ল্যাঙ্গার

0

এফএনএস স্পোর্টস: নিষিদ্ধ হওয়ার আগে বিরাট কোহলির তুলনায় স্টিভেন স্মিথ হয়তো এগিয়েই ছিলেন। কিন্তু বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিটাই যতো সর্বনাশের মূল। ক্রিকেটভক্তদের চোখে অনেকটাই নিচে নেমে গেছেন আধুনিক ক্রিকেটের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান। এদিকে অজিদের ঘরের মাঠে বুক চিতিয়ে লড়াই করে দেখাচ্ছেন কোহলি। এমন সময় নিজেদের মেধাবী অধিনায়ক স্মিথকে মনে পড়া অজিদের জন্য স্বাভাবিক।

ভারতের অধিনায়ক কোহলি যেখানে ক্রমেই নিজেকে ছাড়িয়ে নিচ্ছেন অনন্য উচ্চতায়, সেখানে স্মিথকে এখন দলে ফেরা আর সম্মান পুনরুদ্ধার করার লড়াইয়ে নামতে হচ্ছে। তবে স্মিথকে অজিরা কতোটা মিস করে তা বোঝা গেল কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারের কথায়। তার মতে, স্মিথ হচ্ছেন কোহলির ‘অজি ভার্সন’।

অজি কোচ ল্যাঙ্গার তিন নিষিদ্ধ তারকার সঙ্গে একান্তে দেখা করেছেন এবং ফেরার জন্য তাদের যে আগ্রহ আর প্রস্তুতি তা দেখে তিনি নিজেই বিস্মিত। বিশেষ করে স্মিথের আগ্রহ আর প্যাশন দেখে তিনি অনেক খুশি।

‘আমি মনে করি সে (স্মিথ) ফেরার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। অবশ্যই এটা তার জন্য কঠিন সময়। কিন্তু তাকে ফিরতে দেখতে আমাদের তর সইছে না। সে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের বিরাট কোহলি। এটাই সত্য।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি ফাঁস হওয়ার পর তিন অভিযুক্ত স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটের ওপর অনেক ঝড় বয়ে গেছে। হয়েছেন সাময়িক নিষিদ্ধ। প্রথম দু’জন এক বছর আর ব্যানক্রফট ৯ মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটাচ্ছেন। তবে অজিরা তাদের ফিরতে দেখার জন্য কতোটা উন্মুখ হয়ে আছে তা ল্যাঙ্গারের কথাতেই পরিস্কার।

আগামী মার্চে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পাবেন স্মিথ-ওয়ার্নার। আর এই ডিসেম্বরের ২৯ তারিখ থেকে মুক্ত হচ্ছেন ব্যানক্রফট। মূলত আগামি বিশ্বকাপের দলেই তাদের ফেরানোর ইচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার। তার আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে অনুষ্ঠেয় সিরিজেও তাদের দেখা যেতে পারে যা মার্চ-এপ্রিলে মাঠে গড়াবে।

স্মিথ, কোহলি, ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট ও নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে বলা হয় আধুনিক ক্রিকেটের চার ‘প্রিমিয়ার ব্যাটসম্যান’। এর মধ্যে স্মিথকে তো অজি কিংবদন্তি স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের সঙ্গেও তুলনা করা হতো। এক বছরের নিষেধাজ্ঞা তাকে আগের চেয়েও ভালো ক্রিকেটার বানাতে পারে বলে ক’দিন আগেই মন্তব্য করেছেন স্মিথ।

Share.

Leave A Reply