ইংল্যান্ড চেইসের ৮ উইকেটে বিধ্বস্ত

0

এফএনএস স্পোর্টস: ম্যাচের ভাগ্য অনেকটা ঠিক হয়ে গিয়েছিল জেসন হোল্ডারের ডাবল সেঞ্চুরির পরই। দেখার ছিল, ইংল্যান্ড কতটা লড়াই করতে পারে। রোস্টন চেইসের বিধ্বংসী বোলিংয়ে সেটিও করতে পারল না ইংলিশরা। বড় জয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বারবাডোজ টেস্টে ইংল্যান্ডকে ৩৮১ রানে উড়িয়ে দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চার দিনেই জিতে ক্যারিবিয়ানরা এগিয়ে গেছে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজে।

টেস্টের চতুর্থ দিনে শনিবার ইংলিশরা শেষ ইনিংসে অলআউট হয়েছে ২৪৬ রানে। অফ স্পিনে ৬০ রানে ৮ উইকেট নিয়েছেন চেইস। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্টে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন। এরপর আর সেই স্বাদ পাচ্ছিলেন না। দলে তার মূল কাজ ব্যাটিং। ২৭তম টেস্টে এসে আবার শুধু ৫ উইকেটই নিলেন না, ক্যারিবিয়ানদের ইতিহাসে ষষ্ঠ সেরা বোলিংয়ের কীর্তিও গড়লেন।

চেইসের ছোবলের আগে এই ইনিংসে লড়াইয়ের ইঙ্গিত রেখেছিল ইংল্যান্ড। বিনা উইকেটে ৫৬ রান নিয়ে দিন শুরু করে ররি বার্নস ও কিটন জেনিংস লড়াই চালিয়ে যান। ৮৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন ফাস্ট বোলার আলজারি জোসেফ। ফিরিয়ে দেন ৮৪ বলে ১৪ রান করা জেনিংসকে।

দারুণ খেলতে থাকা বার্নসকে বোল্ড করে চেইস শুরু করেন শিকার। চতুর্থ টেস্ট খেলতে নামা বাঁহাতি ওপেনার ১৫ চারে করেছেন ক্যারিয়ার সেরা ৮৪ রান। এরপর আর বড় কোনো জুটি গড়ে ওঠেনি। জো রুট, বেন স্টোকসরা থিতু হলেও লম্বা সময় উইকেটে টিকতে পারেননি।

তিনে নামা জনি বেয়ারস্টোকে ৩০ রানে ফিরিয়েছেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। পরের সবকটি উইকেট নিয়েছেন চেইস। ৩১ রানে শেষ ৬ উইকেট হারিয়েছে ইংল্যান্ড।

আট নম্বরে নেমে রেকর্ড গড়া ডাবল সেঞ্চুরিতে ম্যাচ সেরা হয়েছেন অধিনায়ক হোল্ডার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস ২৮৯

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৭৭

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস: ৪১৫/৬ (ইনিংস ঘোষণা)

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৬২৮) ৮০.৪ ওভারে ২৪৬ (বার্নস ৮৪, জেনিংস ১৪, বেয়ারস্টো ৩০, রুট ২২, স্টোকস ৩৪, বাটলার ২৬, মইন ০, ফোকস ৫, কারান ১৭, রশিদ ১, অ্যান্ডারসন ৪*; রোচ ০/৫৮, গ্যাব্রিয়েল ১/৫৫, হোল্ডার ০/২৪, চেইস ৮/৬০, জোসেফ ১/৩৫, ক্যাম্পবেল ০/১০)।

ফল: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩৮১ রানে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১-০তে এগিয়ে

ম্যান অব দা ম্যাচ: জেসন হোল্ডার

Share.

Leave A Reply